চৌগাছায় কলেজের সামনে বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ বন্ধের দাবি

যশোর : যশোরের চৌগাছা মৃধাপাড়া মহিলা কলেজের সামনে সড়ক ও জনপথের জায়গায় বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ বন্ধের দাবি জানিয়ে যশোর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বরাবর আবেদন করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। কলেজটির উপাধ্যক্ষ আলমগীর সিদ্দিকী স্বাক্ষরিত একটি দরখাস্ত জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বরাবর দেয়া হয়েছে।
দরখাস্তে উল্লেখ করে বলা হয়েছে, ১৯৯৫ সালে চৌগাছা পৌরসভার প্রাণকেন্দ্রে কপোতাক্ষ নদের পাশে প্রতিষ্ঠিত চৌগাছা মৃধাপাড়া মহিলা কলেজ এ অঞ্চলের একটি স্বনামধন্য নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এখানে এইচএসসি, বিএ (পাশ) ও ৬টি বিষয়ে বিএ (সম্মান) কোর্স ছাড়াও উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন বিভিন্ন কোর্সে প্রায় ২হাজার ৫শ নারী শিক্ষার্থী লেখাপড়া করছে। সম্প্রতি কলেজটির সম্মুখে চৌগাছা-মহেশপুর সড়কের ধারের সড়ক ও জনপথ বিভাগের পতিত জায়গায় জেলা পরিষদ একটি বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে। এটি নির্মিত হলে সেখানে বিভিন্ন অবাঞ্চিত লোকজনের আনাগোনায় কলেজটিতে অধ্যয়নরত ২ হাজার ৫শ নারী শিক্ষার্থীর নিরাপত্তা ও সুষ্ঠু লেখাপড়ার পরিবেশে বিঘœ সৃষ্টি হবে।
আবেদনে আরো বলা হয়েছে, ১৯৭৩/৭৪ সালে চৌগাছা কপোতাক্ষ ব্রিজ নির্মাণের জন্য ‘সড়ক ও জনপথ বিভাগ’ স্থানীয় বাসিন্দা আকবর আলী মৃধা ও রজব আলী মৃধার নিকট থেকে অধিগ্রহণ করে। যার দাগ নং সাবেক (এসএ) ২১৬ ও ২১৭ মোট জমির পরিমান ৭৩শতাংশ। সে হিসেবে বর্তমানে জমিটির মালিক সড়ক ও সেতু বিভাগ হওয়ায় সেখানে জেলা পরিষদ সেখানে বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ কতটা যুক্তিযুক্ত সে প্রশ্নও দেখা দিয়েছে।
আবেদনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মৃধাপাড়া মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ড. মুস্তানিচুর রহমান লাড্ডু। তিনি বলেছেন, আমরা ওই স্থানে যেন বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ না করা হয় সেজন্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের নিকট একটি আবেদন জমা দিয়েছি।
কলেজটির ব্যবস্থাপনা পরিষদের সভাপতি ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি এবং আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট এবিএম আহসানুল হক আহসান বলেন, দীর্ঘদিন ধরে কলেজটি অত্র অঞ্চলে নারী শিক্ষায় আলো ছড়িয়ে আসছে। কলেজটি সামনে বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ হলে সেখানে আগত বিভিন্ন অবাঞ্চিত লোকজনের কারণে ছাত্রীদের নিরাপত্তা ও শিক্ষার সুষ্ঠ পরিবেশ বিঘিœত হবে।