যশোর জেলার শ্রেষ্ঠ করাদাতা নির্বাচিত হয়েছেন সুপ্রিয় ভট্টাচার্য

যশোর : চলতি বছরের যশোর জেলার শ্রেষ্ঠ করাদাতা নির্বাচিত হয়েছেন তরুণ ব্যবসায়ী সুপ্রিয় ভট্টাচার্য। শুভ এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী সুপ্রিয় ভট্টাচার্য শুভ কর দিয়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছেন। এ বছর যশোর জেলায় ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান হিসেবে শুভ এন্টারপ্রাইজ শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত হয়েছে। মঙ্গলবার যশোর শেখ হাসিনা সফটওয়ার টেকনোলজি পার্কে এক অনুষ্ঠানে তার হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন তার বাবা স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য এমপি।

এ পুরস্কার লাভের পর সুপ্রিয় ভট্টাচার্য তার অনুভূতিতে বলেন, সততার সাথে ব্যবসা করলে সফলতা আসবেই। সততার মূল্য কখনো বিফলে যেতে পারে না। নিজের সফলতার সাথে দেশের মঙ্গলও কামনা করতে হবে। আমাদের সফলতার সাথে দেশের সফলতা জড়িয়ে রয়েছে। এ কারণেই আমাদেরকে সঠিক ভ্যাট ও কর দিতে হবে। ভ্যাট দিলে দেশের উন্নয়ন হবে।

তিনি বলেন, ‘আজ আমাদের দেশের বৈদেশিক ঋণের পরিমাণ কমেছে। সরকার কর আদায়ের মাধ্যমে অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে অর্থ যোগাড় করে দেশের উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ফলে পরনির্ভরতাও অনেক কমে গেছে। আর এর পেছনে অবদান এদেশের ব্যবসায়ীরা। আমরা (ব্যবসায়ীকরা) যদি সঠিকভাবে ভ্যাট দিই তাহলে দেশ আরও এগিয়ে যাবে। জোর করে কিংবা আইন প্রয়োগ করে পরিপূর্ণ কর আদায় সম্ভব নয়। এজন্য মানসিকতার পরিবর্তন প্রয়োজন। তাহলে সহজে ট্যাক্স আদায় সম্ভব হবে এবং দেশের উন্নয়ন ঘটবে।’


শ্রেষ্ঠ করাদারা পুরস্কার লাভের অনুভর্তি সম্পর্কে বলেন, ‘আজ ভালো লাগছে। যে আমি দেশের উন্নয়নে অংশীদার হতে পেরেছি। আমার পরিশ্রমের সফলতা এসেছে। যে সফলতা আমার জেলার পাশাপাশি দেশের উন্নয়নে আমি আজ একজন গর্বিত অংশীদার। এই অংশীদার হতে পারার যে অনুভূতি তা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব নয়। সেরা করদাতা হিসেবে সম্মাননা পেয়ে গর্বিত অনুভব করছি। কারণ দেশের একজন নাগরিক হিসেবে আমার দায়িত্বটুকু পালন করেছি। আর পুরস্কার পরবর্তীতে অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে। প্রত্যেক নাগরিকের উচিত সঠিক সময়ে সঠিকভাবে কর দেওয়া।’

তিনি বলেন, এ পুরস্কার আমাকে সমাজের কাছে আরও বেশি দায়বদ্ধতা বাড়িয়ে দিয়েছে। সমাজের কাছে আমার ঋণ বাড়ছে। আমাকে সমাজের জন্য কিছু করতে হবে।

তিনি মনে করেন, রাষ্ট্রের সঙ্গে কখনোই বেঈমানী করা উচিত নয়। কখনোই সম্পদের হিসেব গোপন রাখা উচিত নয়।
এ বছর খুলনা বিভাগসহ ফরিদপুর, রাজবাড়ি, গোপালগঞ্জ জেলায় ২১জন করদাতা নির্বাচিত হয়েছে।