অভয়নগরে এক যুবকের গলায় দড়ি পেঁচানো লাশ উদ্ধার

অভয়নগর প্রতিনিধি : অভয়নগরের দিয়াপাড়ায় মোঃ সিরাজুল ইসলাম(২২) নামে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। মোঃ সিরাজুল উপজেলার আব্বাস মোল্যার পুত্র। নিহত সিরাজুল ও রুমার ছয় বৎসরের বিবাহিত জীবনে চার বৎসরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। রুমা পার্শ্ববর্তী শংকরপাশা গ্রামের মোঃ জব্বারের কন্যা।
নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার গভীর রাতের কোন এক সময় সিরাজুল গলায় দড়ি পেঁচিয়ে আত্ম হত্যা করেছে। নিহতের চাচা শহীদুল সাংবাদিকদের বলেন, আমি ভোরে ফজরের নামাজ পড়ার পরে নিহতের স্ত্রী রুমার কান্নার শব্দ শুনে দ্রুত যেয়ে দেখলাম গলায় দড়ি পেঁচানো অবস্থায় লাশটি মেঝেতে পড়ে রয়েছে। এ বিষয়ে সিরাজুলের স্ত্রী রুমার কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের নিকট মুখ খোলেননি। কিন্তু এলাকাবাসী সাংবাদিকদের নিকট ভিন্ন মত প্রকাশ করেছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন ইউপি মেম্বর ও এলাকাবাসী বলেন, অভয়নগর ব্রীজ সংলগ্ন এলাকার সরকারী জমির দখল ও জুয়ার আসর হতে প্রাপ্ত অর্থের ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে চাচা শহীদের বেদম প্রহারে সিরাজুলের মৃত্যু ঘটেছে। শহীদ পূর্ববাংলা কমিউনিষ্ট পার্টির সশস্ত্র দলের নিয়ন্ত্রন করে। তার বিরুদ্ধে কথা বলার সাহস কেউ দেখায়না। এলাকাবাসীরা আরোও বলেন, শহীদুল বিভন্ন মহলকে টাকার বিনিময়ে ম্যানেজ করে নিয়েছে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এস.আই ফারুক মুঠোফোনে বলেন, লাশ উদ্ধার করে যশোর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে, ময়না তদন্তের শেষে মৃত্যুর প্রকৃত তথ্য জানা যাবে।