ভারত ২৩ রকম শক্তিশালী টিকা তৈরি করল : নিউমোনিয়া থেকে মিলবে মুক্তি

ঢাকা : ভারতে অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীদের তৈরি করোনা প্রতিষেধকটির উৎপাদনের কাজ শুরু করতে চলেছে বিশ্বের বৃহত্তম টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট। করোনার টিকা তৈরির আগেই নিজেদের তৈরি নিউমোনিয়ার প্রতিষেধক বাজারে ছাড়ার অনুমতি পেয়ে গেল সিরাম ইনস্টিটিউট।

ইতিমধ্যেই পুনের এই ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থার তৈরি নিউমোনিয়ার প্রতিষেধকটি বাজারে ছাড়ার অনুমতি দিয়েছে ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া। মোট তিন পর্যায়ে ২,২২৫ জন শিশুর উপর সিরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি প্রতিষেধকের ট্রায়াল চলেছে।
ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া বিশেষ বিশেষজ্ঞ কমিটি মোট তিন পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের তথ্য বিশ্লেষণ করেছে। সবকটি ট্রায়ালের তথ্য বিশ্লেষণ করে সিরাম ইনস্টিটিউট এই প্রতিষেধকটিকে ‘নিউমোকোক্যাল পলিসারাইড কনজুগেট ভ্যাকসিন’ হিসেবে বাজারে ছাড়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

করোনা সংক্রমণের সঙ্গে অনেক ক্ষেত্রেই মিল রয়েছে নিউমোনিয়ার উপসর্গের। তবে করোনা যেমন- RNA ভাইরাস ঘটিত একটি রোগ, নিউমোনিয়ার জন্য অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দায়ী হলো ব্যাকটেরিয়া। তবে ব্যাকটিরিয়া ছাড়াও ছত্রাক ও ভাইরাসের সংক্রমণের ফলেও নিউমোনিয়া হতে পারে।

জানা গেছে, নিউমোক্কাল পলিস্যাকারাইড ব্যাকটেরিয়ার স্ট্রেন কাজে লাগিয়ে এই ভ্যাকসিন প্রতিষেধকটি বানিয়েছে সিরাম ইনস্টিটিউট।

সংস্থার দাবি, তাদের তৈরি এই প্রতিষেধকটি ২৩ রকম নিউমোনিয়ার হাত থেকে সুরক্ষা দিতে সক্ষম। করোনা আতঙ্কের আবহে সিরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি নিউমোনিয়ার টিকা বাজারে আসার খবরে কিছুটা স্বস্তি মিলল।