শতকের আশা হোল্ডারের

ঢাকা : বল হাতে তাণ্ডব ছড়িয়েছেন। বুদ্ধিদীপ্ত বোলিংয়ে ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইন আপ গুঁড়িয়ে দিয়েছেন। ক্যারিয়ারের সপ্তমবারের মতো ইনিংসে পাঁচ উইকেট তুলে নিয়েছেন। ব্যক্তিগত সেরা টেস্ট বোলিং ফিগার পেয়েছেন। ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের লক্ষ্য এখন সাউদাম্পটন টেস্টে ব্যাট হাতেও শতক হাঁকানো।

ব্যাটিং সামর্থ্যে বরাবরই নিজেকে প্রমাণ করা হোল্ডার বোলার হিসেবেও নিজেকে প্রমাণ করে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। প্রথম ২০ টেস্টে ৩২ উইকেট পাওয়া হোল্ডার শেষ ২০ টেস্টে তুলে নিয়েছেন ৮০ উইকেট। এর মধ্যে এই ম্যাচসহ শেষ ১০ টেস্টেই ছয়বার ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকার করেছেন। সাউদাম্পটন টেস্টে হোল্ডারের ক্যারিয়ার সেরা ৬/৪২ বোলিং ফিগারের সুবাদে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে প্রথম ইনিংসে ২০৪ রানে আটকে দেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

বল হাতে আগুন ঝরিয়ে নিজের দায়িত্ব শেষ বলে মানছেন না ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক। ব্যাট হাতেও দলের জন্য অবদান রাখতে চান জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলেনে, ‘প্রথম ইনিংসে এখন পর্যন্ত দলকে এগিয়ে রাখতে আমি ভালো খেলতে পেরেছি। তবে এই টেস্টে এখানেই আমার দায়িত্ব শেষ বলে আমি মনে করি না। একটা কাজ সঠিক ভাবে শেষ হয়েছে। এখন আমাকে মাঠে পড়ে থেকে দলের জন্য একটা শতক হাঁকাতে হবে।’

এরপরে হোল্ডার আরও যোগ করেন, ‘ইংল্যান্ডের মাটিতে ছয় উইকেট পাওয়া নিশ্চয়ই গর্বের বিষয়। আর যেভাবেই দলের জন্য অবদান রাখা যায়, সেটাই আনন্দের। তবে আমার কাজ ব্যাট এবং বল দুই ক্ষেত্রেই অবদান রাখা। আর তাই আমি যে কোনো প্রকারেই হোক রান চাই এখন। আমার পক্ষে দলের জয়ের জন্য ব্যাট হাতে অবদান রাখার দারুণ সুযোগ আছে।’

বল হাতে দারুণ পারফরম্যান্সের পর কথার যুদ্ধেও ইংল্যান্ডকে দারুণভাবে আক্রমণ করে রাখলেন হোল্ডার। এখন দেখার বিষয় ইংল্যান্ড হোল্ডারকে তাড়াতাড়ি ফেরাতে পারে কী? নাকি সাউদাম্পটন টেস্টে অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্সে ওয়েস্ট ইন্ডিজের নায়ক হয়ে ওঠেন ক্যারিবিয়ান এই অধিনায়ক।