শার্শায় মাকে বটি দিয়ে কুপিয়ে আহত করল ছেলে

এ আলী, বেনাপোল : যশোরের শার্শায় বুধবার বিকালে মা জোহরা খাতুনকে (৭০) কুপিয়ে আহত করেছে ছোট ছেলে ইদ্রিস আলী। আহত মা শার্শা উপজেলার বাঁগআচড়া ইউনিয়নের বসতপুর গ্রামের মৃত. আব্দুল জলিলের স্ত্রী।
আহত মা জানান, মেয়ে মর্জিনা খাতুন বাজার থেকে বাড়ি আসলে জমিজমার পূর্ব শত্রুতার জেরে ছেলে ইদ্রিস আলী তার সাথে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। একাজে সহযোগিতা করেছে স্ত্রী রওশন আরা ও ছেলে বিপ্লব হোসেন। পরে কাঠের চলা দিয়ে মেয়েকে মেরে আহত করে সে। গন্ডগোলের এক পর্যায়ে বটি হাতে কোপানোর জন্য তাড়া করে ইদ্রিস। অবস্থা বেগতিক দেখে মর্জিনা ঘরে ঢুকে গেট আটকিয়ে দেয়। আমি এই মারামারি না করার জন্য শান্ত হতে বলি। এ সময় ইদ্রিস ক্ষিপ্ত হয়ে হাতে থাকা বটি দিয়ে কোপ দেয় আমার হাতে। এর আগে আমার হাতে চলার বাড়ি লেগে ফুলে আছে। পরে স্থানীয়রা ডাক্তার এনে আমার চিকিৎসা দেয়।
এ বিষয়ে ছেলে ইদ্রিস আলী বলেন, আমার গ্যাঞ্জামের কারণে ছোটবোনের ভাষাগত ব্যাপারে মার যে ক্ষতি হয়েছে এটা অপূরণীয় ক্ষতি। এর সার্বিক দায় দায়িত্ব আমার যেহেতু আমার উদ্দেশ্য করেই হয়েছে।
শার্শা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বদরুল আলম খান বলেন, এ ব্যাপারে আমার কাছে কেউ কোন অভিযোগ করেনি।